মদ্যপ জাহাজি

7254f8a0761f92535c7ec212b6768d26.jpg

জাহাজ থেকে নেমে আসলো এক মদ্যপ, রাত তখন
চলে যাওয়ার প্রস্তুতিতে ব্যস্ত, তার অধীনস্হ রয়েছে কিছু অংশ।

ভোরের যখন ঘুম ভেঙে যাচ্ছে, সেই মদ্যপের ঘোর কেটে গেলো
সিগারেট হাতে বসে পড়ল সমুদ্র তীড়ে,
একেকটা বিশাল ঢেউ যেন বার্তা নিয়ে আসছে
দুই যুগ পিছনের কোন গল্পের বার্তা!
তখন সময় হাস্যোজ্জ্বল ছিলো,
বাতাসের আলোড়নে, মেজাজ ফুরফুরে হবার অভ্যাস ছিল।
তখন- ভালবাসার ফুল ফোটে ভেবে স্বপ্নে বিভোর হওয়ার বয়স ছিল।
অনেক আশংকাই উড়িয়ে দেওয়া যেত সিগারেটের ধোঁয়ার সাথে।
ভুল করতে ছটফট করত কিশোর মন ,
আর ভুলের সাগরে ডোবা শুরু হলো তখন থেকেই।

পতনের প্রায় শেষ সীমানায় এসে হুস হলো ,
মনে হলো বড্ড দেরি হয়ে গিয়েছে;
কাশফুল প্রিয় ছিল যে মেয়েটির,তাকে আর দেখা যেত না বারান্দায়।
গুণে গুণে পাঁচবার, পৃথিবী সূর্যকে প্রদক্ষিণ করলেও তাকে আর কাশফুল নিয়ে আনমনে দাড়িয়ে থাকতে দেখা গেলো না।
কিশোরটি পূর্ণাঙ্গ যুবক হয়ে গেলো,সেই সাথে বিরহে কাতর।
নামটাও যে জানা হয়নি তার, আগ্নেয়গিরির উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ত সারাটা দেহে।

কর্ম ব্যস্ততার মাঝে আজও মনে পড়ে, তার পুরনো অতীতের কিছু রংহীন সময়ের গল্প

সামুদ্রিক বাতাসে গা ভাসিয়ে দেওয়ার মুহূর্তে আকাশ পানে সেই কিশোরীর মুখ ভাসে।
মধ্যপ নাবিকের তখন- নেশা ছেড়ে যায়,
চোখ ভিজে যায়,
অজানা বিষাদে!

Share

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.